Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সাধারণ তথ্য

 

 

ক্রঃনং

কার্যক্রম

সেবা

সেবা গ্রহীতা

সেবা প্রাপ্তির সময়সীমা

সেবাদানকারী কর্তৃপক্ষ

০১

০২

০৩

০৪

০৫

০৬

 

আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন সেবা (সুদমুক্ত ঋণ)

 

 

 

 

 

 

 

১.

 

 

 

 

 

 

 

পল্লী সমাজসেবা কার্যক্রম

 

* পল্লী অঞ্চলের দরিদ্র,জনগণকে সংগঠিত করে উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় আনায়ন ;

* সচেতনতা বৃদ্ধি,উদ্ধূদ্ধকরণ এবং দক্ষতা উন্নয়নেরর লক্ষ্যে প্রশিক্ষণ প্রদান;

* ৫ হাজার থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্ষুদ্রঋণ প্রদান;

* লক্ষ্যভূক্ত ব্যক্তিদের নিজস্ব পুঁজি গঠনের জন্য সঞ্চয় বৃদ্ধি।

নির্বাচিত গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা যিনি ঃ-

*আর্থ-সামাজিক জরিপের মাধ্যমে সমাজসেবা কার্যক্রমের কর্মদলের সদস্য/সদস্যা;

*সুদমুক্ত ক্ষুদ্র ঋণ ও অন্যান্য সেবা প্রাপ্তির জন্য ‘ক’ ও ‘খ’শ্রেণীভূক্ত দরিদ্রতম ব্যক্তি অর্থাৎ যার মাথাপিছু  বার্ষিক পারিবারিক আয় সর্বোচ্চ ২৫হাজার টাকা পর্যন্ত;

* সুদমুক্ত ঋণ ব্যতীত অন্যান্য সেবা প্রাপ্তির জন্য ‘গ’ শ্রেণীভূক্ত ব্যক্তি অর্থাৎ যার মাথাপিছু বার্ষিক পারিবারিক আয় ২৫ হাজার টাকার উর্ধে।

নির্ধারিত ফরমে যথাযথ পদ্ধতি অনুসরণ করে আবেদনের পরঃ-

*১ম বার ঋণ(বিনিয়োগ) গ্রহণের জন্য আবেদনের পর ১ মাসের মধ্যে:

* ২য়/৩য় পর্যায়ের ঋণ (পুনঃবিনিয়োগ)

গ্রহণ এর জন্য আবেদনের পর ২০দিনের মধ্যে

 

 

 

 

 

 

 

৪৮১টি উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়

২.

পল্লী মাতৃকেন্দ্র কার্যক্রম

* পল্লী অঞ্চলে দরিদ্র নারীদের সংগঠিত করে উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় আনয়ন;

* পরিকল্পিত পরিবার তৈরিতে সহায়তা:

*জাতীয় জনসংখ্যা কার্যক্রম বাস্তবায়ন;

*সচেতনতা বৃদ্ধি, উদ্ধুদ্ধকরণ

এবং দক্ষতা উন্নয়ন;

*৩হাজার থেকে ৫হাজার টাকা পর্যন্ত ক্ষুদ্রঋণ প্রদান;

লক্ষ্যভূক্ত নারীদের সংগঠিত করে সঞ্চয় বৃদ্ধির মাধ্যমে পুঁজি গঠন।

নির্বাচিত গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা,

যিনিঃ-

*আর্থ-সামাজিক জরিপের মাধ্যমে সমাজসেবা অধিদফতরে তালিকাভূক্ত পল্লী মাতৃকেন্দ্রের সদস্য এবং

*সুদমুক্ত ঋণ ও অন্যান্য সেবা প্রাপ্তির জন্য ‘ক’ ও ‘খ’ শ্রেণীভূক্ত দরিদ্রতম নারী যার মাথাপিছু বার্ষিক পারিবারিক আয় সর্বোচ্চ ২৫হাজার টাকা পর্যন্ত ;

* সুদমুক্ত ঋণ ব্যতীত অন্যান্য সেবা প্রাপ্তির জন্য ‘গ’ শ্রেণীভূক্ত নারী যার মাথাপিছু বার্ষিক পারিবারিক আয় ২৫হাজার টাকার উর্ধে।

নির্ধারিত ফরমে যথাযথ পদ্ধতি অনুসরণ করে আবেদনের পরঃ-

*১ম বার ঋণ(বিনিয়োগ) গ্রহণের জন্য আবেদনের পর ১মাসের মধ্যে:

* ২য়/৩য় পর্যায়ের ঋণ (পুনঃবিনিয়োগ)

গ্রহণ এর জন্য আবেদনের পর ২০দিনের মধ্যে।

 

 

 

৩১৮টি উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় এবং পল্লী এলাকায় স্থাপিত ১২,৯৫৬টি মাতৃকেন্দ্র।

 

 

৩.

 

 

এসিডদগ্ধ ও প্রতিবন্ধীদের

পুনর্বাসন কার্যক্রম

 

 

 

৫ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকা ক্ষুদ্রঋণ।

 

*এসিডদগ্ধ মহিলা ও শারীরিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তি যাদের বাৎসরিক আয় ২০,০০০/=(বিশ হাজার) টাকার নিচে।

*১ম বার ঋণ(বিনিয়োগ) গ্রহণের জন্য আবেদনের পর ১মাসের মধ্যে:

* ২য়/৩য় পর্যায়ের ঋণ (পুনঃবিনিয়োগ)

গ্রহণ এর জন্য আবেদনের পর ২০দিনের মধ্যে।

 

 

৪৮১টি উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়

 

 

 

 

৪.

 

 

 

 

আশ্রয়ন/

আবাসন কার্যক্রম

* আশ্রয়ন প্রকল্পে বসবাসকারী দরিদ্র ব্যক্তিদের সংগঠিত করে উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় নিয়ে আসা;

* পরিকল্পিত পরিবার তৈরিতে সহায়তা প্রদান;

* সচেতনতা বৃদ্ধি,উদ্ধুদ্ধকরণ এবং দক্ষতা উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রশিক্ষণ প্রদান;

* ২ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্ষুদ্রঋণ প্রদান;

* সদস্যদের সঞ্চয় বৃদ্ধিকরণ।

* নির্বাচিত আশ্রয়ন কেন্দ্রের বাসিন্দা;

*আশ্রয়ন কেন্দ্রের সমিতির সদস্য।

*১ম বার ঋণ(বিনিয়োগ) গ্রহণের জন্য আবেদনের পর ১মাসের মধ্যে:

* ২য়/৩য় পর্যায়ের ঋণ (পুনঃবিনিয়োগ)

গ্রহণ এর জন্য আবেদনের পর ২০দিনের মধ্যে।

 

 

 

৫৭টি জেলার

১৮০টি উপজেলার উপজেলা সমাজসেবা অফিস।

 

সামাজিক নিরাপত্তা সেবা

 

 

 

 

 

 

৫.

 

 

 

 

 

বয়স্ক কার্যক্রম

 

* সরকার কর্তৃক সামাজিক নিরাপত্তার জন্য নির্ধারিত হারে বয়স্ক ভাতা প্রদান । এ জন্য ২০১১-১২ অর্থ বছরে নির্বাচিত বয়স্ক ব্যক্তিদের জনপ্রতি মাসিক ৩০০ টাকা হারে ভাতা প্রদান করা হচ্ছে।

*  দেশের সকল সিটি কর্পোরেশন,পৌরসভা ও উপজেলার ৬৫ বছর বা তদূর্ধ বয়সী হতদরিদ্র মহিলা বা পুরুষ,যার বার্ষিক গড় আয় অনুর্ধ ৩০০০(তিন হাজার)টাকা

* শারীরিক ভাবে অক্ষম ও কর্মক্ষমতাহীন প্রবীণ পুরুষ ও মহিলাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়া হয়;

* তালাকপ্রাপ্ত, স্বামী পরিত্যক্তা, বিপত্নীক, নিঃসন্তান, পরিবার থেকে বিছিন্ন প্রবীণ পুরুষ ও নারীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হয়।

 *যে সকল প্রবীণ ব্যক্তির আয়কৃত অর্থের সম্পূর্ণ অর্থ খাদ্য বাবদ ব্যয় হয় এবং স্বাস্থ্য,চিকিৎসা,বাসস্থান ও অন্যান্য খাতে ব্যয় করার জন্য কোন অর্থ অবশিষ্ট থাকে না;

*ভূমিহীন বয়স্ক ব্যক্তি।

*বরাদ্দ প্রাপ্তি সাপেক্ষে সর্বোচ্চ ৩ মাসের মধ্যে নতুন ভাতাভোগী নির্বাচনসহ ভাতা বিতনণের ব্যবস্থা গ্রহণ;

*নির্বাচিত ভাতাভোগীকে বরাদ্দপ্রাপ্তি সাপেক্ষে প্রতিমাসে প্রদান করা । তবে কেউ এককালীন উত্তোলন করতে চাইলে তিনি নির্ধারিত সময়ের শেষে উত্তোলন করবেন;

*ভাতাগ্রহীতার নমিনী ভাতাভোগীর মৃত্যুর পর তিন মাস পর্যন্ত ভাতার টাকার উত্তোলন করা যাবে।

 

 

 

 

 

* উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়(উপজেলা ও ‘গ’ শ্রেণীর পৌরসভার ক্ষেত্রে)

৬.

বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্তা দুঃস্থ মহিলা ভাতা

সরকার কর্তৃক সামাজিক নিরাপত্তার জন্য নির্ধারিত হারে বিধবা ও স্বামী  পরিত্যক্তা দুঃস্থ মহিলা ভাতা প্রদান । নির্বাচিত বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্তা দুঃস্থ মহিলাদের  জনপ্রতি মাসিক ৩০০ টাকা হারে ভাতা প্রদান করা হচ্ছে।

*১৮ বছার বা তদূর্ধ বয়সী  হতদরিদ্র বিধবা মহিলা:

* বিধবা,তালাকপ্রাপ্ত ,স্বামী পরিত্যক্তা দু:স্থ মহিলা এ ভাতা খাতের সুবিধাভোগী।

*বরাদ্দ প্রাপ্তি সাপেক্ষে সর্বোচ্চ ৩ মাসের মধ্যে নতুন ভাতাভোগী নির্বাচনসহ ভাতা বিতনণের ব্যবস্থা গ্রহণ;

*নির্বাচিত ভাতাভোগীকে বরাদ্দপ্রাপ্তি সাপেক্ষে প্রতিমাসে প্রদান করা । তবে কেউ এককালীন উত্তোলন করতে চাইলে তিনি নির্ধারিত সময়ের শেষে উত্তোলন করবেন ;

 

 

 

* উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় (উপজেলা ও ‘গ’ শ্রেণীর পৌরসভার ক্ষেত্রে)

 

 

 

 

 

৭.

 

 

 

 

 

অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা কার্যক্রম

 

সরকার কর্তৃক সামাজিক নিরাপত্তার জন্য নির্ধারিত হারে অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা প্রদান। এ জন্য ২০১১-১২ অর্থ বছরে নির্বাচিত প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জনপ্রতি মাসিক ৩০০টাকা হারে ভাতা প্রদান করা হচ্ছে।

 

*৬ বছরের উর্ধে সকল প্রতিবন্ধী ব্যক্তি যিনি বয়স্কভাতা কিংবা সরকার কর্তৃক অন্য কোন ভাতা পান না; যিনি চাকুরীজীবী কিংবা পেনশনভোগী নন;

*প্রতিবন্ধী ব্যক্তি যাদের বার্ষিক মাথাপিছু পারিবারিক আয় ২৪,০০০(চবিবশ হাজার)টাকার কম

*বরাদ্দ প্রাপ্তি সাপেক্ষে সর্বোচ্চ ৩ মাসের মধ্যে নতুনভাতাভোগী নির্বাচনসহ ভাতা বিতনণের ব্যবস্থা গ্রহণ;

*নির্বাচিত ভাতাভোগীকে বরাদ্দপ্রাপ্তি সাপেক্ষে প্রতিমাসে প্রদান করা । তবে কেউ এককালীন উত্তোলন করতে চাইলে তিনি নির্ধারিত সময়ের শেষে উত্তোলন করবেন ;

 

 

 

 

 

 

উপজেলাসমাজসেবা কার্যালয়(উপজেলা ও উপজেলা পর্যায়ের পৌরসভার ক্ষেত্রে)

 

 

 

 

৮.

 

 

 

 

প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা উপবৃত্তি

প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের ৪টি স্তরে বিভক্ত করে নিম্নরুপ হারে উপবৃত্তি প্রদানঃ-

*প্রাথমিক স্তর(১ম-৫মশ্রেণী): জনপ্রতি মাসিক ৩০০টাকা ;

*মাধ্যমিক স্তর (৬ষ্ঠ-১০ম শ্রেণী):জনপ্রতি মাসিক ৪৫০টাকা;

*উচ্চ মাধ্যমিক স্তর (একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণী); জনপ্রতি মাসিক ৬০০টাকা;

*উচ্চতর স্তর (স্নাতক ও স্নাতকোত্তর);জনপ্রতি মাসিক ১০০০টাকা;

*সরকার কর্তৃক অনুমোদিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত ৫বছর বয়সের উর্ধে প্রতিবন্ধী

ছাত্র-ছাত্রী,যাদের বার্ষিক মাথাপিছু পারিবারিক আয় ৩৬,০০০(ছত্রিশ হাজার)টাকার নিচে।

*বরাদ্দ প্রাপ্তি সাপেক্ষে সর্বোচ্চ ৩ মাসের মধ্যে নতুন উপবৃত্তি গ্রহণকারী নির্বাচনসহ উপবৃত্তি বিতরণ এবং নিয়মিত ভাবে শিক্ষাকালীন সময়ে;

 

 

 

 

উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়

(উপজেলা ও পৌরসভার ক্ষেত্রে)

 

 

 

 

 

৯.

 

 

 

 

 

মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা

*সরকার কর্তৃক নির্ধারিত হারে ভাতা প্রদান । ২০১০ ১২ অর্থ বছরে প্রত্যেক মুক্তিযোদ্ধাকে মাসিক জনপ্রতি ২০০০ টাকা হারে ভাতা প্রদান।  

*মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার বিধবা স্ত্রী যার বার্ষিক আয় ১২,০০০টাকার উর্ধে নয়;

*মুক্তিযোদ্ধা বলতে জাতীয় ভাবে প্রকাশিত ৪টি তালিকার কমপক্ষে দুটি তালিকায় অন্তর্ভূক্ত ,সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ এবং বাংলাদেশ রাইফেলস হতে প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় যাদের নাম অন্তর্ভূক্ত আছে বা মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কর্তৃক মুক্তিযোদ্ধা সনদপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ।

*এক্ষেত্রে কর্মক্ষম নন বা আংশিক কর্মক্ষম/ভূমিহীন/কর্মহীন/সহায় সম্বলহীন মুক্তিযোদ্ধাগণ অগ্রাধিকার পাবেন ;

 

 

*বরাদ্দ প্রাপ্তি সাপেক্ষে সর্বোচ্চ ৬মাসের মধ্যে নতুন ভাতাভোগী নির্বাচনসহ ভাতা বিতরণের ব্যবস্থা গ্রহণ;

*মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা প্রতিমাসে প্রদান করা হয,তবে কেউ ইচ্ছা করলে একাধিক মাসের বকেয়া ভাতা একত্রে উত্তোলন করতে পারবেন।

 

 

*উপজেলা

সমাজসেবা কর্মকর্তা,উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়(উপজেলা ও উপজেলা পর্যায়ের ‘ক’ ‘খ’ ও‘গ’ শ্রেণীর পৌরসভার ক্ষেত্রে)

 

সেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ সংস্থা সমূহকে নিবন্ধন ও সহায়তা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

১০.

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ সংস্থা সমূহকে নিবন্ধন ও তত্ত্বাবধান

*স্বেচছাসেবী সমাজকল্যাণমূরক সংগঠনের নামকরণের ছাড়পত্র প্রদান;

*১৯৬১ সালের স্বেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ সংস্থাসমূহ(নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রন)অধ্যাদেশের ২(চ)ধারায় বর্ণিত সেবামূলক কার্যক্রমে আগ্রহী সংস্থা/প্রতিষ্ঠান/সংগঠন/বেসরকারী এতিমখানা/ক্লাব নিবন্ধন;

*নিবনধন প্রাপ্ত সংগঠনের গঠনতন্ত্র বা সংশোধিত গঠনতন্ত্র অনুমোদন,সাধারণ ও কার্যকরী পরিষদ অনুমোদন,মেয়াদান্তে নব নির্বাচিত কার্যকরী পরিষদ অনুমোদন;

*নিবন্ধন প্রাপ্ত সংগঠনের কার্যএলাকা একাধিক জেলায় সম্প্রসারণের অনুমোদন;

*নিবন্ধন প্রাপ্ত সংগঠনের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ নিস্পত্তির ব্যবস্থা গ্রহণ;

*নিবন্ধন প্রাপ্ত সংগঠন সমূহের কার্যক্রম তদারকি।

*স্বেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ মূলক কার্যক্রমে আগ্রহী সংগঠন,প্রতিষ্ঠান,ক্লাব,সংস্থা,

সমিতি ইত্যাদি।

*নিবন্ধন-প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদন পত্র প্রাপ্তির পর ২০কর্ম দিবস;

*নামের ছাড়পত্র

-প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদন পত্র প্রাপ্তির পর ৭ কর্ম দিবস;

*কার্যকরী কমিটি অনুমোদন-প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদনপত্র প্রাপ্তির পর ১০কর্ম দিবস;

*কার্য এলাকা সম্প্রসারণ-প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রাপ্তির পর ৩০কর্ম দিবস;

*অভিযোগ নিষ্পত্তি-অভিযোগ প্রাপ্তির পর ৩০কর্ম দিবস;

 

 

 

 

 

 

 

 

১১.

 

 

 

 

 

 

 

বেসরকারী এতিমখানায় ক্যাপিটেশন গ্রান্ট প্রদান

*১৮বছর বয়স পর্যন্ত এতিম শিশুদের প্রতিপালন

*স্নেহ-ভালবাসা ও আদর-যত্নের সাথে লালন পালন

*আনুষ্ঠানিক শিক্ষা ও বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান

*শারীরিক,বুদ্ধিদৃত্তিক ও মানবিক উৎকর্ষতা সাধন

*শিশুর পরিপূর্ণ বিকাশে সহায়তা

*পুনর্বাসন ও স্বনির্ভরতা অর্জনের লক্ষ্যে তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা।

বেসরকারী এতিমখানার ৫-৯ বছর বয়সী এতিম অর্থাৎ পিতৃহীন বা পিতৃমাতৃহীন দরিদ্র শিশুর শতকরা ৫০ভাগ শিশু।

বেসরকারী এতিমখানা কর্তৃক ক্যাপিটেশন গ্র্যান্টের আবেদন প্রাপিত্মর ৭মাস পর।

সংশ্লিষ্ট উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় এবং শহর সমাজসেবা কার্যালয় এর মাধ্যমে দেশব্যাপী ৩ হাজার বেসরকারী এতিমখানা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

১২.

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সমাজকল্যাণ পরিষদের মাধ্যমে নিবন্ধনপ্রাপ্ত সংস্থাসমূহে অনুদান প্রদানে সহায়তা

*সমাজসেবা অধিদফতর হতে ঘোষিত জাতীয় পর্যায়ের প্রতিষ্ঠান সমূহে অনুদান বার্ষিক ৫০হাজার হতে সর্বোচ্চ ২লক্ষ টাকা অনুদান;

*রোগী কল্যাণ সমিতি সমূহের জন্য ৫০হাজার হতে ২লক্ষ টাকা অনুদান

*নিবন্ধন প্রাপ্ত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনসমূহের আয়বর্ধক কর্মসূচির জন্য অনুদান

*নিবন্ধন প্রাপ্ত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সমূহের জন্য ৫হাজার হতে ২০হাজার টাকা সাধারণ অনুদান এবং আয়বর্ধক কর্মসূচির জন্য সর্বোচ্চ ১লক্ষ টাকা অনুদান;

*প্রতিষ্ঠান/সংগঠন/সংস্থা/দুস্থ ব্যক্তিদের বিশেষ সর্বোচ্চ ২৫হাজার অনুদান;

*আকস্মিক দুর্ঘটনা বা প্রাকৃতিক দূর্যোগের জন্য জনপ্রতি সর্বোচ্চ ১হাজার টাকা।

সমাজকল্যাণ পরিষদ থেকে নিম্বলিখিত প্রতিষ্ঠান/সংগঠনকে অনুদান প্রদান করা হয়;

*জাতীয় পর্যায়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন

*রোগী কল্যাণ সমিতি

*নিবন্ধন প্রাপ্ত সাধারণ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন

*বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান

*দরিদ্র/ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি

*সমাজকল্যাণ পরিষদে প্রতি বছর আগষ্ট মাসে জাতীয় দৈনিক পত্রিকার বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী আবেদন করতে হয়।

*ডিসেম্বরের মধ্যে জেলা ও উপজেলা সমাজকল্যাণ পরিষদ আবেদন বাছাই করে জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদে সুপারিশ প্রেরণ করে।

*জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদ এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়।

*সমাজকল্যাণ পরিষদ সমাজকল্যাণ মন্র্ণালয়ের অধীন একটি সংস্থা। মাঠ পর্যায়ে পরিষদের কার্যক্রম সমাজসেবা অধিদফতরের

*উপজেলা পর্যায়ে ৪৮১টি উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় এবং ৬৪টি জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের মাধ্যমে বাস্তবায়িত হয় ।